শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
বিস্ফোরক আইনের মামলায় কুলিয়ারচর বিএনপি’র ১৩ নেতাকর্মীর জামিন নামঞ্জুর ‘মার্কিন দূতাবাসে নালিশের পর নালিশ করেও লাভ হয়নি’ কুলিয়ারচরে বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি’র নির্বাচন-২০২২ অনুষ্ঠিত চাটখিলে ব্রাজিল সমর্থকদের ১৮০ ফুট পতাকা নিয়ে মিছিল টেকসই উন্নয়নে- নবায়ন যোগ্য জ্বালানী” প্রতিপাদ্যে আইডিইবি’র ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ঘিওরে নানা আয়োজনে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত চাটখিলে পেট্রোল ঢেলে দোকান পোড়ানোর অভিযোগ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম মেধা তালিকা প্রকাশিত নবীগঞ্জে ইমামবাড়ী রাজরাণী সুভাগিনী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ কমিটিতে অনিয়মের অভিযোগ ফ‌লোআপঃ বন মামলা থে‌কে রেহায় পে‌তে লাখ টাকার মিশ‌নে পাহাড়‌খে‌কো প্রবাসী সায়মন !

পত্নীতলায় মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে কোটি টাকার নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ

সকালের কন্ঠ
  • আপডেটের সময় : সোমবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ২১ Time View

পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:

নওগাঁর পত্নীতলায় কাদিয়াল দিদ্দিকীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাও: নওসাদ আলমের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্ণীতি ও নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অনুসন্ধানে উঠে এসেছে নওগাঁর পত্নীতলার কাদিয়াল সিদ্দিকীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাও: নওসাদ আলম ও সহকারী শিক্ষক আসলাম আলীর বিরুদ্ধে। ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ শেষ না হতেই গোপনভাবে পকেট কমিটি গঠন করে ডিজি প্রতিনিধির সাক্ষর জাল করে আয়া, নিরাপত্তা কর্মী, পরিচ্ছন্নকর্মী ও গ্রন্থাগার মোট চারটি পদে কোটি টাকার নিয়োগ বাণিজ্য, সহকারী শিক্ষক আব্দুল মুত্তালিব অবৈধ নিয়োগ বানিজ্যের প্রতিবাদ করতে গেলে মিথ্যা অভিযোগ এনে শিক্ষা নীতিমালাকে উপেক্ষা করে সাময়িক বহিষ্কার করাসহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্ণীতির চিত্র উঠে এসেছে। এমন অনিয়ম ও দূর্ণীতির ফলে আজ ধ্বংসের পথে অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। গত ১০ জানুয়ারি কাদিয়াল সিদ্দিকীয়া দাখিল মাদ্রাসায় গিয়ে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষার্থী ক্লাস বর্জন করেছে।

অনুসন্ধানে উঠে আসে গত ৩১ অক্টোবর ২০১৮ সালে মো: আব্দুর রকিব কে সভাপতি করে দুই বছরের জন্য পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। যে কমিটির মেয়াদ ছিলো ৩১ অক্টোবর ২০২০ সাল পর্যন্ত। কিন্তু কমিটির মেয়াদ শেষ না হতেই নয় মাস পূর্বে মহামারী করোনা ভাইরাসের সময় ১৭ মার্চ ২০২০ সালে এডহক কমিটি না করেই মো: আবুল হোসেন কে সভাপতি করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি গঠন কে কেন্দ্র করে জেলা প্রশাসন ও জেলা শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করা হলে, তদন্তের দায়িত্ব পড়ে তৎকালীন পত্নীতলা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মুসহাক আলীর নিকট। তিনি নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করে কাদিয়াল সিদ্দিকিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাও: নওসাদ আলম ও সহকারী শিক্ষক আসলাম আলীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সুপারিশ করেন।

এসকল অনিয়ম ও দূর্ণীতির প্রতিবাদ করায় অত্র মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক আব্দুল মুত্তালিব কে একের পর এক মিথ্যা অভিযোগ তুলে ২০ মে ও ১৫ জুলাই শুক্রবার দিনে দুটি কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন সুপার মাও: নওসাদ আলম। নোটিশের সঠিক জবার দিলেও সহকারী শিক্ষক আব্দুল মুত্তালিব কে শিক্ষানীতিমালা কে উপক্ষো করে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

এ বিষয়ে অত্র এলাকার শাহাবুল ইসলামসহ অত্র এলাকার গণমাণ্য ব্যক্তিরা বলেন, এক সময় আমাদের এই প্রতিষ্ঠানটি এলাকার একটি নামকড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিল। শারীরিক শিক্ষক আসলাম আলী আসার পর তারই অসৎ বুদ্ধিতে সুপার নওসাদ আলম একের পর এক অনিয়ম আর দূর্ণীতি করেই চলছেন। যদি কেউ এর প্রতিবাদ করে তাহলে তাকে বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে হুমকি দেওয়া হয়। বর্তমানে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। আমরা এসব দূর্ণীতিবাজ শিক্ষকদের কঠোর শাস্তির জোর দাবি জানাচ্ছি।

কাদিয়াল সিদ্দিকীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওঃ নওসাদ আলমের কাছে তার অনিয়ম ও দূর্ণীতির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভাই আপনারা এই নিউজটি করেন না। আপনাদের চায়ের জন্য খরচা দিয়ে দিচ্ছি।

এ বিষয়ে পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা: রুমানা আফরোজ এর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, এবিষয়ে একটি তদন্ত আসছে আমার কাছে। তদন্তের মাধ্যমেই প্রকৃত ঘটনা উঠে আসবে।

শেয়ার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও
  • © All rights reserved shokalerkatho© 2023
Powered Sokaler Kontho
themesba-lates1749691102